Science & Tech

আজ চন্দ্রগ্রহণ, ভারতের সর্বত্র দৃশ্যমান

প্রায় ১৫০ বছর পর গ্রহণ লাগবে গুরু পূর্ণিমার চাঁদে। প্রায় ৫ ঘন্টা ৩৪ মিনিট চলবে এই চন্দ্রগ্রহণ। ভারত ছাড়াও এশিয়া, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া এবং আফ্রিকার বিভিন্ন অংশ থেকে এই গ্রহণ দেখা যাবে।বছরের শেষ চন্দ্রগ্রহণ আজ।

আজ, মঙ্গলবার মাঝরাতের একটু পরেই চাঁদ আংশিক ভাবে ঢাকা পড়বে পৃথিবীর ছায়ায়। হবে এই বছরের প্রথম ও শেষ আংশিক চন্দ্রগ্রহণ। আর সেই গ্রহণ দেখা যাবে কলকাতা-সহ ভারতের সর্বত্রই। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত। বুধবার গুরুপূর্ণিমার চাঁদে পড়বে পৃথিবীর ছায়া। ১৪৯ বছর আগে শেষ বার গ্রহণ দেখা গিয়েছিল গুরু পূর্ণিমার চাঁদে। বুধবার ফের সেই দৃশ্যের সাক্ষী হতে চলেছে ভারতবাসী। ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে চাঁদ ডুবে যাবে বলে আংশিক চন্দ্রগ্রহণের শেষটা শুধু দেখতে পারবেন না অরুণাচল প্রদেশের উত্তর-পূর্ব প্রান্তের মানুষ।

১৭ জুলাই রাত ১২টা ১৩ মিনিট নাগাদ গ্রহণ লাগবে চাঁদে। গ্রহণ সর্বোচ্চ মাত্রায় পৌঁছবে রাত ৩টে নাগাদ। রাত দেড়টার পর থেকে ভারত থেকে আংশিক ভাবে দেখা যাবে এই চন্দ্রগ্রহণ। ভোর ৪টে ২৯ মিনিটে আংশিক গ্রহণ কেটে যাবে এবং দেখা যাবে উপচ্ছায়া গ্রহণ। অর্থাত্, হালকা ছায়া থাকবে চাঁদের গায়ে। ৫টা ৪৭ মিনিট নাগাদ শেষ হবে গ্রহণ। অর্থাত্, প্রায় ৫ ঘন্টা ৩৪ মিনিট চলবে এই চন্দ্রগ্রহণ। এর মধ্যে ২ ঘন্টা ৫৮ মিনিট হবে আংশিক চন্দ্রগ্রহণ।

সঞ্জীবের কথায়, ‘‘এ বার আংশিক চন্দ্রগ্রহণ ভারতের সর্বত্র তো বটেই দেখা যাবে অস্ট্রেলিয়া, উত্তর-পূর্ব অংশটি বাদ দিয়ে গোটা এশিয়া, স্ক্যান্ডিনেভিয়ার উত্তর দিকটিকে বাদ দিয়ে গোটা ইউরোপ এবং দক্ষিণ আমেরিকার বেশির ভাগ অংশেই।’’ ২০১৯ সালের শেষ চন্দ্রগ্রহণ এটি। সম্পূর্ণ গ্রহণ দেখা যাবে পশ্চিম ও মধ্য ভারত থেকে। তবে, দেশের পূর্ব অংশে সম্পূর্ণ গ্রহণ দেখা যাবে না। ভারত ছাড়াও এশিয়া, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া এবং আফ্রিকার বিভিন্ন অংশ থেকে এই গ্রহণ দেখা যাবে। মহাকাশবিদদের মতে, আকাশে মেঘ না থাকলে প্রত্যক্ষ করা যাবে এই গ্রহণ।যে কোনও বছরে (জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর) পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি হলে মোট ৭টি গ্রহণ হতে পারে। সে ক্ষেত্রে ৪টি হবে সূর্যগ্রহণ আর ৩টি চন্দ্রগ্রহণ। বা হবে ৫টি সূর্যগ্রহণ আর ২টি চন্দ্রগ্রহণ। আংশিক, পূর্ণগ্রাস ও বলয় গ্রাসের মতো সেই সূর্য ও চন্দ্রগ্রহণগুলি সব ধরনেরই হতে পারে। আর সবচেয়ে কম হলে বছরে গ্রহণের সংখ্যা হয় ২টি। আর সে ক্ষেত্রে সেই দু’টিই হবে সূর্যগ্রহণ। এই বছর গ্রহণ হওয়ার কথা মোট ৫টি। বছরের প্রথম গ্রহণটি হয়েছিল ৬ জানুয়ারি। তা ছিল আংশিক সূর্যগ্রহণ। যা ভারতে দেখা যায়নি। তার পর পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ হয়েছিল ২১ জানুয়ারি। সেটিও ভারতে দেখা যায়নি। তার পরেরটি ছিল পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ। দেখা যায়নি ভারতে। চিলি, আর্জেন্টিনা-সহ দক্ষিণ আমেরিকার একটি বিস্তীর্ণ এলাকায় দেখা গিয়েছিল সেই পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ। মঙ্গলবার বছরের প্রথম ও শেষ আংশিক চন্দ্রগ্রহণটি দেখা যাবে গোটা ভারতেই। এই বছরে হাতে পড়ে রয়েছে আর একটি গ্রহণ। সূর্যের বলয় গ্রাস। যা হবে আগামী ২৬ ডিসেম্বর। সেটিও ভারতে দেখা যাবে। সূর্যের সেই বলয় গ্রাসের পথটাই যাবে দক্ষিণ ভারতের উপর দিয়ে।

Show More

Related Articles

Back to top button
Close