Big Story

“আয়কর দফতর বললেন কই এবছর তো কোন নোটিশ পাঠায় নি “, তবে কিসের বিক্ষোভ ?

বিবৃতি দিয়ে জানাল সিবিডিটি চলতি বছরে পুজো কমিটিগুলিকে কোনও আয়কর নোটিস পাঠানো হয়নি, আয়কর দফতর আজ সরাসরি বলেন , ২০১৮ সালে ডিসেম্বরে ১৯৬১ আয়কর আইনের ১৩৩ (৬) সেকশনে নোটিস পাঠানো হয় ৩০টি পুজো কমিটিকে !

আয়কর নোটিস পাঠানোর খবর উড়িয়ে দিল আয়কর দফতর বা সিবিডিটি যে অভিযোগ তুলেছে পুজো কমিটিগুলি । আয়কর দফতর জানায় এক বিবৃতিতে পুজো কমিটিগুলিকে নোটিস পাঠানোর খবর ভুয়ো। এ ধরনের কোনও নোটিস চলতি বছরে পাঠানো হয়নি বলে দাবি সিবিডিটি-র তরফ থেকে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্গাপুজো কমিটিগুলিকে আয়কর নোটিস পাঠানোর খবরে সমালোচনা করেন । তার পড়িই এই ঘটনার প্রতিবাদে ধরনায় বসে । আজ সকালে সুবোধ মল্লিক স্কোয়ারের হিন্দ সিনেমার বিপরীতে তৃণমূলক কংগ্রেসের ‘বঙ্গ জননী’ শাখা ধরনায় বসে। তৃণমূল ও বিজেপি শিবিরে আয়করের এই নোটিস নিয়ে চাপান-উতর তৈরি হয়।

আয়কর দফতর জানায় ২০১৮ সালে ডিসেম্বরে আয়কর আইনের ১৩৩ (৬) সেকশনে নোটিস পাঠানো হয় ৩০টি পুজো কমিটিকে। ওই নোটিসে শুধুমাত্র জানতে চাওয়া হয় পুজো কমিটিগুলির সঙ্গে যুক্ত ঠিকাদার এবং ইভেন্ট ম্যানেজারের পেমেন্ট নিয়ে। অর্থাৎ যারা এখনও পর্যন্ত রিটার্ন ফাইল করেননি।তার ফলে টিডিএস-এর খতিয়ানও চাওয়া হয় বলে জানানো হয়েছে। এর পাশাপাশি, আয়কর দফতর জানায় চলতি বছরে জুলাইয়ে বেশ কয়েকটি পুজো কমিটির সদস্যকে টিডিএস বিষয়ে প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়েছে সেটা নিয়ম মাফিক ।

সেন্ট্রাল বোর্ড অব ডিরেক্ট ট্যাক্সেস-এর চেয়ারপার্সন পিসি যোশী, আয়করের পশ্চিমবঙ্গ সার্কেলের প্রিন্সিপ্যাল কমিশনার বিশ্বনাথ ঝা-এর কাছে এই নিয়ে উষ্মা প্রকাশও করেন মমতা বাধ্যপাধ্যায় । এর ফলে তলব করা হয় রিপোর্টও , পশ্চিমবঙ্গ সার্কেলের থেকে রিপোর্ট জমাও দেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়। এই রিপোর্টে বলা হয় , শুধুমাত্র নিয়ম কানুন বোঝাতেই পুজো উদ্যোক্তাদের বৈঠকে ডেকেছিল আয়কর দফতর। কীভাবে রিটার্ন ফাইল করবে, কখন কত টিডিএস কাটবে ইত্যাদি বোঝাতে।

এদিকে সকাল থেকে বৃষ্টি ভেজা দিনে ধর্নায় ছিলেন দূর্গা পুজোর কর্মকর্তা সহ অনেক রাজনৈতিক নেতারা। চোখে পড়ার মত ভিড় নাহলেও পুলিশ পাবলিক মিলিয়ে রাস্তা যান চলাচলে নাজেহাল নিত্য যাত্রীরা।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close