Analysis

“জয় শ্রীরাম ” না “জয় সীতারাম ” কোন পথে আগামীর ভারত !

যুক্তি তর্কে কানাইহা কুমার : অসাধারণ বিন্যাস

প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা এবং ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি নেতার স্মরণে বালমট্টার বিশব জ্যাঠনা সম্মেলনে ১০ ই আগস্ট থেকে দু’দিনের বি ভি কাক্কল্যা শতবর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য কানহাইয়া মঙ্গলুরুতে যোগ দিয়েছিলেন এই অনুষ্ঠানে।

কানহাইয়া তার বক্তব্য শুরুর আগেই এবিভিপি সদস্যদের শ্রোতাদের কাছে বসানো হয়েছিল। পুলিশ তাদের বাইরে নিয়ে যায়।জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ছাত্র ইউনিয়নের প্রাক্তন সভাপতি কানহাইয়া কুমার বলেছেন যে জনগণের উচিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পৃষ্ঠপোষকতা বন্ধ করা এবং তাকে প্রশ্ন করা শুরু করা উচিত।

এখানে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টির নেতা বি ভি কাক্কিল্যের শতবর্ষ উদযাপন চলাকালীন ‘এবিভিপির এর মহিলা সদস্যা প্রশ্ন করেন যে ” শ্রী রাম , বলেন একটাই ভারত নয় কেন ? একটাই শিক্ষা ব্যবস্থা নয় কেন , যখন আমরা একই মা- বাবার সন্তান তখন একটাও পার্টি নয় কেন , কেন কেও বলবে ইনকিলাব , আপনারা সীতারাম বলুন ,কেন আমরা এক ভারত , কেন এক দেশ বলবো না কেন এই প্রশ্ন করেন।
কানাইহা বলেন ” আমাদের লোকেরা জয়শ্রী রাম বলে না বলে জয় সীতা রাম।

এবিভিপির সদস্য বলেন সীতারাম আর জয় শ্রী রামের পার্থক্য বুঝি ” আমরা এক বাবা এক মা বুঝি , কেন এক জাতি এক দেশ হবে না কেন ? কেন ইনকিলাব কেন এত পার্টি, এক পার্টি নয় কেন ? কেন এক দেশ নয় ?

কানাইহা বলেন ” দেখুন আমার মা আর বাবা যদি বিয়ে না তাহলে আমিই হতাম না , আর ভারত তো একই আছে। এর মধ্যে কোন বিতর্ক নেই কিন্তু আমাদের দেশে সংবিধান আছে তাতে ৩০০ বেশি ধারা আছে সেখানে একটি ধারা নেই কেন ? , আর আমাদের যে লোকসভা ও রাজ্য সভা আছে তাতে একটি লোক যায় না , সেখানে ৫৪৫ সদস্য যান। আর আপনি বললেন জয় শ্রী রাম বললেন এটাও আমাদের এই সংবিধান অধিকার দিয়েছেন। আপনি একবার জয় সংবিধান বলুন যে সংবিধান আপনাকে এই বলবার অধিকার দিয়েছে।

অসাধারণ বাগ্নিতা কানাইহা কুমার , ধর্মনিরপেক্ষতার ক্ষেত্রে অসাধারণ চর্চা করলেন তাতে নৈতিক পরাজয় মেনে এবিভিপির সদস্যরা বেরিয়ে যান , সকাল থেকেই উত্তেজনা ছিল এলাকায়। কিন্তু পুলিশের কড়া ব্যবস্থায় সেভাবে কেন অপ্রীতিকর ঘটনা হয়নি কিন্তু এবিভিপির সমর্থিকরা কালো পতাকা দেখান।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close