Nation

“৭০ বছরে কংগ্রেস যা করেনি মাত্র ৭৫ দিনেই ” আর “৩৪ বছরে সিপিআইএম যা পারেনি তাই করেছেন ১০০ দিনে মমতা”

প্রধান মন্ত্রীর প্রসংশা করে যা বললেনঅমিত শাহ , একদম একই কথা বলেছিলেন মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায় ২০১১ পরিবর্তনের ১০০ দিন পর তাই বলেছিলেন। বিষয়ের পার্থক্য থাকলেও ভাবনার পার্থক্য নেই।

প্রকাশের চিন্তাও এক, লক্ষ এক শুধু ভাষা আলাদা , সময় ও স্থান-কাল ও পাত্র আলাদা ভাবনায় অমিল নেই।হরিয়ানার জিন্দে এক জনসভায় অমিত শাহ বলেন,কংগ্রেস যা করতে পারেনি ভোট ব্যাঙ্কের লোভে ৭০ বছরে ,প্রধানমন্ত্রী মাত্র ৭৫ দিনে করে দেখিয়েছেন। আর সেদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা বলেছিলেন একটু মনে করলেই দেখবেন যে একই কথার বিষয় আলাদা , বাকি সব এক।

৭৫ দিনে অনেক গুরুত্ব পূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মোদী- অমিত শাহ জুটি। কিন্তু ৭০ বছর দেশের ক্ষমতায় মানুষ কংগ্রেস কে রেখে ছিল সেই সিদ্ধান্ত নাকি ভুল ছিল। এই ধরণের কোথাও বেরিয়ে এসেছিলো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ থেকে যে ৩৪ বছরের বাম সরকার শিল্প কৃষি স্বাস্থ শিক্ষা কর্মসংস্থান সব কিছুই নাকি বাংলাকে পিছিয়ে দিয়েছে। তাহলে এতগুলো ব্রিজ , হাসপাতাল সরকারি প্রতিষ্ঠান , আবাসন প্রকল্প , শহরের আধুনিক পরিকল্পনা , শিল্প থেকে পঞ্চায়েত বিবিধ বিষয় গুলো কে ফাইলের পরিবর্তন থেকে অফিস কাছারির নীল সাদা রঙের মধ্যে দিয়ে এতো তাড়াতাড়ি কয়েক শো উদ্বোধন করা যেতনা বোধ হয়।

আজ হরিয়ানার জিন্দে এক জনসভায় প্রবীণ বিজেপি নেতা বীরেন্দ্র সিং বলেন ” সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল ছিলেন লৌহপুরুষ। সে সময় ইস্পাত তৈরি হতো না দেশে। কিন্তু এখন ইস্পাতের ব্যবহার হয়। অমিত শাহকে ‘ইস্পাত-পুরুষ’ বলা যেতে পারে ” ।অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলোপের সিদ্ধান্তে অমিত শাহকেই সার্টিফিকেট দিতে চান তিনি।

আর ২০১১ সালে পরিবর্তনের পর পশ্চিম বাংলাতে ৩৪ বছরের সরকারের কেত্রেও একই ধরণের আচরণই করছিলেন যে সাধারণ মানুষের যা চাহিদা সবই প্রাপ্তি যোগ করে দিয়ে ছিলেন তৃণমূল পরিচালিত সরকার। যুবদের কর্মস্থান , কৃষকের অধিকার, শিল্পের উন্নয়ন, রাস্তা ঘাট থেকে সাস্থ ব্যবস্থা স্বচ্ছ প্রশাসন উপহার দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারই ঠিক কিছুদিন পর বেরিয়ে পড়েছিল ত্রিফলা কেলেঙ্কারি ২৪ অগাস্ট ২০১৩ থেকে শুরু ।

হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টরও প্যাটেলের মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ছায়া দেখতে পাচ্ছেন। প্যাটেলের অখণ্ড ভারতের স্বপ্নপূরণ করলেন অমিত শাহ। আগামী নভেম্বরেই বিধানসভা নির্বাচন হরিয়ানায়।৪৭টি আসন পেয়েছেন ৯০ আসনের মাধযে হরিয়ানায় । বলাযায় আজি কার্যত হরিয়ানার আগামী বছরের বিধান সভার আগাম প্রচার শুরু করে দিলেন।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close