Big Story

আদালতের নজরে এবার ফডণবীস।

মহারাষ্ট্রের নাটকে আবার এক নতুন অধ্যায়, ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

@ দেবশ্রী : মহারাষ্ট্রের মহানাটক মনে হয় শেষ হওয়ার নাম নিচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার যখন মহারাষ্ট্রের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিচ্ছিলেন, উদ্ধব ঠাকরে, ঠিক সেই দিনই ফডণবীসের বাড়িতে গিয়ে আদালতের তলবপত্র দিয়ে আসে নাগপুর পুলিশ। এবারে অভিযোগ ওঠে মহারাষ্ট্রের সদ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডণবীস এর বিরুদ্ধে। নির্বাচনী হলফনামা জমা দেওয়ার সময় ফডণবীস তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা দু’টি ফৌজদারী মামলার তথ্য গোপন করেছিলেন। আর সেই অভিযোগেই তাকে তলব করছে, নাগপুর আদালত।

মহারাষ্ট্রের সদ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ১৯৯৬ ও ‘৯৮ সালে দু’টি ফৌজদারী অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। মাস খানেক আগেই মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচন হয়েছে। অভিযোগ ওঠে, ওই নির্বাচনে হলফনামা জমা দেওয়ার সময় ওই দু’টি অপরাধের তথ্য বেমালুম গোপন করেছিলেন ফডণবীস। তথ্য গোপন করার অপরাধে ফডণবীসের বিরুদ্ধে অবিলম্বে ফৌজদারী প্রক্রিয়া চালু করা হোক, এই মর্মে স্থানীয় আদালতে মামলা দায়ের করেছিলেন নাগপুরেরই এক আইনজীবী সতীশ উকে। কিন্তু সেইসময় নিম্ন আদালত উকে-র সেই আবেদন খারিজ করে দেয়। তারপর বম্বে হাইকোর্টে পর্যন্ত মামলাটি যায় কিন্তু সেখানেও নিম্ন আদালতের রায়কেই বহাল রাখে। শেষ পর্যন্ত মামলাটি সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত গড়ায়।

গত ১ অক্টোবর মহামান্য সুপ্রিম কোর্ট নিম্ন আদালতকে নির্দেশ দেয় সতীশ উকের করা মামলাটি এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য। ৪ নভেম্বর আদালত জানায় এটি একটি ফৌজদারী মামলা হিসেবেই গণ্য করা হচ্ছে। নির্দেশ পাওয়ার পরই ফডণবীসের বিরুদ্ধে নোটিস জারি করেন আদালত। বিচারক এস ডি মেহতা এ প্রসঙ্গে বলেন, ফডণবীসের বিরুদ্ধে ১২৫এ শাস্তিযোগ্য ধারা আনা হয়েছে। গত মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন তিনি। আর তার পরই এমন ঘটনায় চরম অস্বস্তিতে নাগপুরের বিধায়ক দেবেন্দ্র ফডণবীস।

সব মিলিয়ে এখনও জলঘোলা হচ্ছে মহারাষ্ট্রে। উদ্ধব ঠাকরে যখন মহারাষ্ট্রের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ গ্রহণ করলেন তখন মনে হয়েছিল এবারে অবসান হবে এই নাটকের কিন্তু তা নয়। এখন মনে হচ্ছে বাকি রয়েছে অনেক অধ্যায়।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close