Industry & Tread

আর কম দামে পাওয়া যাবে না পরিষেবা, দাম বাড়াচ্ছে টেলিফোন সংস্থা।

স্বল্প দামে, দিন কাটানোর সময়সীমা এবার হতে চলেছে শেষ, বছরের শেষেই বাড়তে চলেছে গ্রাহক মাশুলের পরিমান।

@ দেবশ্রী : বছর শেষে টেলিকম সংস্থাগুলি, মোবাইল গ্রাহকদের জন্য নিয়ে এল দুঃসংবাদ। মঙ্গলবার থেকেই এয়ারটেল, ভোডাফোন আইডিয়া ভয়েস কল ও ডেটার প্রি-পেইড মাসুল বাড়াতে চলেছে ৪২ শতাংশ। গত ৪ বছরে এই প্রথম এয়ারটেল এবং ভোডাফোন বাড়াচ্ছে তাদের মাসুল। এখন থেকে এই দুই সংস্থার গ্রাহকরা অন্য অপারেটরের নেটওয়ার্কে ফোন করলে তখন প্রতি মিনিট কথা বলার জন্য ৬ পয়সা করে দিতে হবে। কয়েকদিন আগে অবশ্য, রিলায়েন্স জিও-ও তাদের গ্রাহকদের ক্ষেত্রে এই মাসুল চালু করেছে। এছাড়া রিলায়েন্স জিও জানিয়েছে, ৬ ডিসেম্বর থেকে ৪০ শতাংশ মাসুল বাড়াবে তারা।

কয়েক বছর আগেই টেলিফোন সংস্থাতে প্রবেশ করে জিও আর তার পর থেকেই, টেলিকম সংস্থাগুলির মধ্যে বাজারে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে সস্তায় পরিষেবা দেওয়ার প্রতিযোগিতা বেড়ে যায়। আর তার জেরেই টেলিকম অপারেটর সংস্থাগুলির আর্থিক বোঝা ক্রমশ বাড়তে থাকে। এদিকে গত অক্টোবরে স্পেকট্রাম ব্যবহার ও লাইসেন্স ফি নিয়ে ১৪ বছরের পুরোনো মামলার রায়ে সুপ্রিম কোর্ট টেলিকম সংস্থাগুলির আবেদন খারিজ করে দেওয়ায় এই টেলিকম সংস্থাগুলি উপর আরও আর্থিক বোঝা চাপে । এহেন পরিস্থিতিতে আর্থিক ক্ষতি থেকে বেরিয়ে আসতে এয়ারটেল ও ভোডাফোন-আইডিয়া নিজেদের গ্রাহক মাসুল বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়।

বাজার বিশেষজ্ঞদের মতে, মাসুল বাড়ানো হলে তখন গ্রাহক প্রতি এয়ারটেল ও ভোডাফোন আইডিয়ার গড় আয় বৃদ্ধি পাবে, যা দুই সংস্থার আর্থিক দিক থেকে স্বাস্থ্যের বেহাল দশা কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবে। এয়ারটেল জানিয়েছে, সংস্থার প্রি-পেইড গ্রাহকরা এখন যে মাসুল দেন, সংশোধিত দাম তার থেকে ৪২ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ছে। ফলে নয়া প্ল্যানগুলিতে প্রতি দিন মাসুল ৫০ পয়সা থেকে ২ টাকা ৮৫ পয়সা পর্যন্ত বাড়ছে। অন্য দিকে, ভোডাফোন আইডিয়া জানিয়েছে, ‘আনলিমিটেড’ ক্যাটেগরিতে এবার থেকে থাকবে ২ দিন, ২৮ দিন ও ৩৬৫ দিনের নতুন প্ল্যান এবং সেগুলির দাম সর্বোচ্চ ৪১.২ শতাংশ বাড়ছে। ফলে এখন ভোডাফোন আইডিয়ার আনলিমিটেড ৩৬৫ দিনের প্ল্যানের দাম যেখানে ছিল ১,৬৯৯ টাকা সেটাই ৩ ডিসেম্বর থেকে বেড়ে হচ্ছে ২,৩৯৯ টাকা। তেমনই ৮৪ দিনের প্ল্যানের দাম ৪৫৮ টাকা থেকে বেড়ে ৫৯৯ টাকা এবং ১৯৯ টাকার প্ল্যানের দাম ২৫ শতাংশ মতো বেড়ে হচ্ছে ২৪৯ টাকা।

এই সময় প্রশ্ন উঠছে কত জন গ্রাহক পুনরায় ওই কানেকশান ব্যবহার করবেন ? কারন চাকরির যা বাজার আর যে পরিমানে সবকিছুর দাম বাড়ছে সেখান ফোনের জন্য এতটা পরিমান টাকা কি তারা ব্যায় করবেন ? টেলিফোন সংস্থা গুলি জানায় তারা যেমন মাশুল বাড়াচ্ছে তেমনি তাদের পরিষেবা সংস্থা আরও বেশি উন্নত করছে। অনেক সময়েই গ্রাহকদের অভিযোগ থাকে, যে পরিষেবা ব্যবস্থা ভালো না। ঠিক মতো ডাটা কানেকশান পাওয়া যায় না, কথা বলতে বলতে ফোন কেটে যায় যেগুলি খুবই বিরক্তিকর। তাই কিছু গ্রাহকরা বলেন, তারা একটও বেশি মাশুল দিতে রাজি আছে ভালো পরিষেবা পাওয়ার জন্য।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close