Big Story

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি : “বঙ্গে এবার NRC হবেই “

বিধান সভায় যখন তোড়জোড় চলছে NRC এর বিপক্ষে, তখনি এই বার্তা দিয়ে জানলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি যে বাংলায় NRC হবেই । NRC বিষয়ে তৃণমূল , বাম ও কংগ্রেস এক সাথে।

ইতিমধ্যে বামেরা রাস্তায় নেমে পড়েছে জোর কদমে, সাথে কংগ্রেস এক সাথে না নামলেও পাশে আছি গোছের হাবভাব নিয়ে চলছে। অপরপক্ষে তৃণমূল কংগ্রেস কিন্তু রীতিমত রাস্তায় মিছিল মিটিং করতে শুরু করেছে জেলায় জেলায়। আর ঠিক সেই সময় গত কাল কলকাতায় এসেছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি দলীয় অনুষ্ঠানে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি দলীয় অনুষ্ঠানে সরাসরি জানালেন কেন্দ্র সরকার বদ্ধ পরিকর যে NRC পশ্চিম বঙ্গে হবেই , এর অন্যথা হবে না। ফলে ভস্মে ঘি ঢালা হল বলে মনে করেন রাজনৈতিক সমালোচকরা। সাংবাদিদের মুখোমুখি হয়ে জানান মোদী সরকারের ১০০ দিন উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে তিনি যোগ দিয়েছিলেন। আর বলাই বাহুল্য ১০০ দিনের সাফল্য তুলে ধরে ব্যাখ্যা দেন যে কোন কোন ক্ষেত্রে সাফল্য এসেছে। কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ থেকে নাগরিক পঞ্জি— সবই সরকারের সাফল্য হিসেবে ব্যাখ্যা করেন স্মৃতি।

বলা যায় পশ্চিম বাংলার বর্তমান অবস্থা যা তৈরি হচ্ছে তাতে এক ঐতিহাসিক পক্ষে পট তৈরি হবার জায়গায় এসেছে। তার কারণ NRC ইসুতে এক জোট হচ্ছে একদম উল্টোদিকে থাকা বাম সঙ্গে কংগ্রেস। রাজনৈতিক মহলে চর্চা চলছে যে , কোনঠাসা তৃণমূল , দুর্নীতির অভিযোগে জেরবার। মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়ের ওপর মানুষের ভরসার ভীত কমেছে অনেকটাই , ফলে দিদি কে বলো কর্মসূচিকে নিতে হচ্ছে মানুষের আস্থা অর্জন করতে। তাই ছুটে মার্গ না করে বামেদের সাথে হাত মিলিয়ে সঙ্গে কংগ্রেস কে নিয়ে NRC এর বিপক্ষে তোলপাড় করতে চাইছেন তৃণমূল নেত্রী।

গত কাল সভায় স্মৃতির ইরানি বলেন , এক সময় ভুয়ো ভোটার আটকাতে সচিত্র ভোটার কার্ডের পক্ষে সওয়াল করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। আর এখন NRCনিয়ে বিরোধিতা করছে , এটা মমতার দ্বিচারিতা নয় । এক প্রশ্নের উত্তরে স্মৃতির জবাব, ‘‘অনুপ্রবেশকারীদের আটকাতে পশ্চিমবঙ্গ-সহ গোটা দেশেই নাগরিক পঞ্জি হবে। এটা বিজেপির ঘোষিত সিদ্ধান্ত।’’ যাই হোক বঙ্গের রাজনীতি মোর নিচে অন্য পথে।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close