West Bengal

গুলিতে আক্রান্ত বিজেপি কর্মী। বিক্ষোভ এর সুর ওঠে থানার সামনে।

থানায় জমা হচ্ছে, একের পর এক অভিযোগ, কিন্তু নেওয়া হচ্ছে না পদক্ষেপ। অভিযুক্তেরা ঘুরে বেড়াচ্ছে, দাবি অর্জুন সিং-এর।

@ দেবশ্রী : তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের উপর অভিযোগ টেনে, থানার সামনেই বিক্ষোভ জানায় বিজেপি কর্মীরা। বিক্ষোভ ঘিরে রবিবার দুপুর বেলা চরম উত্তেজনার সৃষ্টি হয়, উত্তর ২৪ পরগনার ঘোলা থানার চত্বরে। এই মাসের ১২ই নভেম্বর সোদপুর ঘোলে, আক্রান্ত হন, এক সক্রিয় বিজেপি কর্মী। পরিতোষ বিশ্বাসী নামের এক ব্যক্তির পায়ে গুলি লাগে, আর সেই ঘটনাকেই কেন্দ্র করে দেখা দেয় বিক্ষোভ।

অভিযোগ ওঠে, পরিতোষ বিশ্বাসের পায়ে গুলি লাগার পিছনে রয়েছে, তৃণমূলের আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। তখন অন্য বিজেপি কর্মীরা, সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। তারপর হাসপাতালে তার অপারেশন হয়, আর অপারেশন হওয়ার পর তাকে সাথে নিয়ে, ঘোলা থানায় হাজির হন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং। থানার পুলিশদের নিষ্ক্রিয়তার প্রতি বিরোধিতা জানিয়ে মিছিল করে থানার সামনে বিক্ষোভ দেখান তিনি।

অসুস্থ পরিতোষ বাবুকে, রবিবার হুইল চেয়ারে করে থানায় আনেন। তারপর সেখানে গিয়ে, সেদিন গুলি লাগার ঘটনার বৃত্তান্ত দেন তিনি। দোষীদের নাম দিয়ে থানায় পুলিশের কাছে অভিযোগ টানা হয়। অর্জুন সিং বলেন, পুলিশরা হাত গুটিয়ে রয়েছে।এই গণতন্ত্রের দেশটাকে পুরো নষ্ট করে ফেলছে তৃণমূলীরা। পুলিশের কাছে অভিযুক্তদের নাম দেওয়া হয়েছে কিন্তু, কোনো রকম ব্যবস্থা এখনও পুলিশ নিচ্ছে না কেন ? ওই দোষীদের গ্রেফতারের দাবি করেন, বিজেপি কর্মীরা। অর্জুন সিং বলেন, আমরা আমাদের অভিযোগ জানিয়েছি, ঘটনায় ৭ থেকে ৮ জন নিযুক্ত ছিল। এখন দেখার বিষয় পুলিশ কি ভূমিকা পালন করেন। আশা করা যাচ্ছে যে নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করবে।

এই বিক্ষোভের অভিযানে, পানিহাটি অঞ্চলের কয়েক হাজার বিজেপি কর্মী অংশগ্রহণ করেন। আর রবিবার এই অভিযোগকে ঘিরে ওই এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে যায়।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close