Women

ঘুরতে গিয়েও ধর্ষণের শিকার হন মহিলা, নির্যাতিতার ফোন ও টাকা নিয়ে চম্পট অপরাধী।

চা এর সাথে মেশানো হয় মাদক, তারপর মহিলার উপর নির্যাতন চালায় যুবক !

@ দেবশ্রী : আবারও মহিলাদের সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন। ঘুরতে গিয়েও হতে হয় নির্যাতিত। মহিলা পর্যটককে চা-এর সাথে মাদক খাইয়ে করা হয় ধর্ষণ। এমনই অভিযোগ ওঠে দিঘায়। সূত্রের মাধ্যমে জানা যায়, হোটেল ঠিক করে দেওয়ার নাম করে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে এক যুবক। আর তারপরে, ভোর রাতে মহিলার নগদ টাকা ও মোবাইল চুরি করে চম্পট দেয় অভিযুক্ত যুবক।

মহিলা দাবি করেন, তাঁর কাছে হাজার পাঁচেক টাকা ছিল। সবটাই নিয়ে গিয়েছে ওই যুবক। এছাড়াও তাঁর একটি দামি মোবাইল ফোনও নিয়ে গিয়েছে। জানা গিয়েছে, একাই দিঘায় বেড়াতে এসেছিলেন ওই মহিলা। মালদহের ইংলিশ বাজারের বাসিন্দা ওই মহিলা রবিবারই দিঘায় ঘুরতে এসেছিলেন। সারাদিন ঘোরার পরে সন্ধ্যায় ট্রেন ধরতে যান। কিন্তু স্টেশনে গিয়ে দেখেন ট্রেন চলে গিয়েছে। এর পরে দিঘা স্টেশনেই বসে ছিলেন। একা বসে থাকতে দেখে আকাশ নামের একটি ছেলে এগিয়ে আসে।

আর তার পরেই মাসি বলে ভাব জমায়। বেশ কিছুক্ষণ কথা বলার পরে মহিলাকে চা খাওয়ান। এবং নিজেকে একজন হোটেল মালিক বলে পরিচয় দিয়ে তার হোটেলে থাকতে বলে ওই যুবক। সেই প্রস্তাবে মহিলা রাজি হয়ে যান। এর পরে ওড়িশার চন্দনেশ্বরে সীতা নামে একটি হোটেল নিয়ে যায়। পুলিশের কাছে মহিলা জানিয়েছেন, চা পান করার পরে ঝিমুনিও এসেছিল। তার পরে রাত বাড়তেই যুবক মহিলার মুখ বেঁধে শারীরিক অত্যাচার চালায়। ভোর রাতের দিকে সবকিছু হাতিয়ে চম্পট দিয়েছে অভিযুক্ত যুবক। বর্তমানে ওড়িশা কোস্টাল থানায় অভিযোগ করছেন ওই মহিলা। ইতিমধ্যেই পুলিশ অভিযুক্তের তল্লাশি শুরু করে দিয়েছে।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close