Industry & Tread

দাম বাড়লেও জিও আসছে নতুন চমক নিয়ে

বছরের শেষেই বাড়ছে সব টেলিকম সংস্থার দাম, তার মধ্যেই স্বস্তির আশ্বাস জিওর।

@ দেবশ্রী : বাড়ছে দেশের তিনটি বেসরকারি টেলিকম সংস্থার ধার্য্য মূল্য। ইতিমধ্যেই, এয়ারটেল ও ভোডাফোন তাদের গ্রাহক মাশুলের কথা ঘোষণা করে জানিয়ে দিয়েছে। আগামী দুই এক দিনের মধ্যেই বেড়ে যাবে, জিওর মাশুলের পরিমান। জানা গেছে, জিওর ৪০ শতাংশ খরচ বাড়ছে। আগামী ৬ ডিসেম্বর নতুন ট্যারিফ লঞ্চ করবে জিও। এমন কথা মুকেশ আম্বানি আগেই জানিয়েছিলেন। তার সাথে এটাও জানিয়েছেন, শুধু দাম কিন্তু বাড়বে না, গ্রাহকদের জন্য চমক থাকবে অনেকগুলো।

মনে করা হচ্ছে বাকিদের সঙ্গে ট্যারিফ চার্জ বাড়ালেও জিও অন্য সব সংস্থাকে টপকে যাবে। ভোডাফোন, এয়ারটেলের থেকে জিও কমপক্ষে ২০ শতাংশ কম খরচের ট্যারিফ আনতে চলেছে বলে মনে করছে টেলকম ক্ষেত্রের বাজার বিশেষজ্ঞরা। যখন থেকে টেলিকম বাজারে রিলায়েন্স জিও প্রবেশ করেছে তখন থেকেই একের পর এক চমক নিয়ে বাজারে হাজির হচ্ছে। জিও এই বারেও একটা বড় চমক দিতে পারে। কিছুদিন আগেই জিও জানিয়েছে সংস্থা অল ইন ওয়ান প্ল্যান নিয়ে আসবে। সেই প্ল্যানে ৪০ শতাংশ খরচ বাড়লেও সুবিধা বাড়বে ৩০০ শতাংশ। আর তাতেই নানা চমকের আশা করা হচ্ছে।

ভারতের সব থেকে দ্রুত ফোর জি নেটওয়ার্ক জিও সম্প্রতি জানিয়েছে, সেপ্টেম্বরে শেষ হওয়া চলতি আর্থক বছরের দ্বিতীয় কোয়ার্টারে সংস্থার লাভ হয়েছে ৯৯০ কোটি টাকা। এই মুহূর্তে জিওর মোট গ্রাহক সংখ্যা ৩৫ কোটির উপরে। ডিসেম্বরে সব টেলিকম সংস্থাই নিজেদের ট্যারিফ চার্জ বাড়িয়েছে। ইতিমধ্যে নতুন ট্যারিফ ঘোষণা করে দিয়েছে ভোডাফোন-আইডিয়া।

গত মঙ্গলবার থেকে চালু হয়েছে এই নয়া পরিকল্পনা আর বিভিন্ন প্ল্যানে অনেকটাই খরচ বাড়িয়েছে ভোডাফোন। সংস্থার সব‌ থেকে জনপ্রিয় ৮৪ দিনের দৈনিক দেড় জিবি ডেটার প্ল্যানটির খরচ ৪৫৮ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ৫৯৯ টাকা। বেড়েছে ৩১ শতাংশ। বার্ষিক প্ল্যানের খরচ বেড়েছে ৪১ শতাংশ। যা আগে ছিল ১,৬৯৯ টাকা। এখন হয়েছে ২,৩৯৯ টাকা।

এয়ারটেল সংস্থাও অনেকটাই দামি হয়েছে আগের তুলনায়। ৩৫ টাকার জনপ্রিয় প্ল্যানটির এখনকার খরচ ৪৯ টাকা। দিনে ৫০ পয়সা করে খরচ বেড়েছে গ্রাহকদের। বন্ধ হয়ে গিয়েছে ১৬৯ ও ১৯৯ টাকার প্ল্যান দু’টি। তার বদলে চালু হয়েছে ২৪৮ টাকার একটি প্ল্যান। এই পরিস্থিতিতে জিও গ্রাহকরা সুখবর পেতে পারেন শীঘ্রই। অন্যদের তুলনায় যেমন প্ল্যান ট্যারিফ কম দামি হবে তেমনই অন্যান্য সুবিধার দিক থেকে‌ও জিও এগিয়ে থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।

কারন যে পরিমান বাজারের চড়া দাম, সেখানে ফোনের পিছনে এতগুলো টাকা খরচ করা গ্রাহকদের পক্ষে তৈরী করবে বেশ অসুবিধা। সেই পরিস্থিতিতেই এখন মনে হচ্ছে জিও শেষ ভরসা।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close