Big Story

নাগরিকত্ব সংশোধন বিল নিয়ে বিরোধ লোকসভায়।

দেশে নাগরিকত্ব নিয়ে উঠেছে তুমুল সমালোচনা। অসমে প্রায় বনধ-এর পরিস্থিতি, সেখানে বিল পেশ করলে হয় তুমুল সমালোচনা।

@ দেবশ্রী : পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ীই, সোমবার লোকসভাতে নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পেশ করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কিন্তু সাংসদে ওই বিল পেশ করা নিয়েই প্রবল আপত্তি দেখায়, কংগ্রেস, তৃণমূল ও বামেরা। বেলা ১২টার দিকে, লোকসভায় বিলটি পেশ করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পাশ করা দেশের জন্য অপরিহার্য।

এর সাথে বিরোধী দল দের উদ্দেশ্যে অমিত শাহ বলেন, ‘প্রস্তাবিত এই বিলকে কোনওভাবেই সংখ্যালঘু বিরোধী বলা যায় না। এই বিল ০.০১ শতাংশও সংখ্যালঘু বিরোধী নয়’। তিনি আরও বলেন, বিল নিয়ে যত রকম প্রশ্ন আছে সেই সব উত্তর দিতে তিনি রাজি আছেন। কিন্তু কেউ যেন সভা থেকে ওয়াক আউট না করেন।

কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সেই যুক্তি মানতে নারাজ বিরোধীরা। বরং লোকসভায় কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী, তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়, কংগ্রেস সাংসদ শশী তারুর প্রমুখ এদিন সংসদের অধিবেশন বসার আগেই স্পিকার ওম বিড়লার কাছে একটি নোটিশ পেশ করেন। তাতে তাঁরা দাবি করেন, নাগরিকত্ব সংশোধন বিল সংসদে পেশ করতেই দেওয়া যাবে না।

কিন্তু তার পরেও বিলটি লোকসভায় পেশ করা হয়। সঙ্গে সঙ্গে বিল পেশের বিরোধিতা করে অধীর চৌধুরী বলেন, এই নাগরিকত্ব বিলটি সংবিধান বিরোধী। সংবিধানের ১৪ ধারায় দেশের সব মানুষের সমানাধিকারের কথা বলা হয়েছে। কিন্তু এই বিলের মাধ্যমে সমাজের একটি সম্প্রদায়কে সম্পূর্ণ আলাদা ভাবে দেখা হচ্ছে। সমাজে একটা বিভাজন তৈরির চেষ্টা হচ্ছে। তাই এই বিল সংবিধানের মূল দর্শনের বিরোধী। এই বিল কোনও ভাবেই সংসদে পেশ করতে দেওয়া যায় না। কমবেশি একই মত জানান, তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়ও।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close