Science & Tech

নিউ প্রভিন্স আইল্যান্ডের কাছের সমুদ্রগর্ভে মিলল রহস্যজনক পিরামিডের সন্ধান

বাহামার কাছাকাছি মিলল নতুন দুই পিরামিডের সন্ধান।

শীর্ষা সেন :   পিরামিডের নাম শুনলেই কিন্তু আগে মাথায় আসে মিশরের কথা।  মিশরের  বালুরাশিতে একচ্ছএ আধিপত্য গড়ে মাথা উঁচিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে মিশরীয় পিরামিড। এছাড়া দক্ষিণ আমেরিকাতেও রয়েছে পিরামিড। শুধু আকার ভিন্ন। কিন্তু এবারের মিশরের সেই দম্ভ হয়তো খুব শীঘ্রই ভাঙতে চলেছে।বাহামা তীরে খোঁজ মিলেছে ২টি রহস্যজনক পিরামিডের। কিন্তু এটি সঠিক একটি পিরামিড কিনা তা বিশ্লেষণ সাপেক্ষ।

কিন্তু এই স্তুপের আকার অনেকটাই পিরামিডের মতই। ইউটিউব চ্যানেলে এই বিষয় নিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে সিকিওর টিম ১০৷ গুগল আর্থের সাহায্যে এই পিরামিড জাতীয় বস্তুর হদিশ পেয়েছেন তারা৷ তাদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, নিউ প্রভিন্স আইল্যান্ডের কাছে সমুদ্রে এর সন্ধান পেয়েছেন তারা৷ জায়গাটি ফ্লোরিডা থেকে খুব বেশি দূরে নয়৷

পিরামিডের লাইনগুলো খুব সহজেই ধরা পড়ে৷এটা প্রমাণ করে এর সবচেয়ে কাছের দ্বীপে অ্যাজটেকের মতো বা ওই ধরনের কোনও এক প্রাচীন মানুষের বাস ছিল৷ যে ছবিগুলি পাওয়া গিয়েছে, সেগুলি দেখতে নিঃসন্দেহে প্রাচীন পিরামিডের মতো৷ সমুদ্রের মধ্যে কোনও কিছুই নষ্ট হয় না৷ কারণ এখানে খোলা বাতাস নেই৷ ফলে মরচে ধরা বা ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে না৷ তবে এই পিরামিড দুটির আকৃতি একই নয়৷ এর মধ্যে একটি গিজার পিরামিডের মতো, অন্যটি মায়া সভ্যতার চিচেন ইত্জার মতো৷

এই প্রথমবার যে মিশর ব্যাতীত অন্য স্থানে পিরামিডের খোঁজ মিলছে তা কিন্তু নয়। ২০১২ সালে মেরেল ভেরলাগ নামে এক বিজ্ঞানী ক্রিস্টাল পিরামিড আবিষ্কার করেছিলেন৷ গিজার পিরামিডের থেকে এটি ৩ গুণ বড়৷ সমুদ্রতল থেকে এটি ৬ হাজার ৫০০ ফিট উঁচু৷

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close