West Bengal

পরকীয়ার জেরে, প্রথমে খুন আর তার পর আত্মহত্যা !

গড়ে উঠছে নতুন নতুন সম্পর্ক, বেড়ে উঠছে পরকীয়া আর এর মধ্যেই হয়ে যাচ্ছে অনেক প্রাণের বলি।

@ দেবশ্রী : ঘটে যায় এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা। প্রথমে বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন আর তার পরে, নিজের গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হন এক ব্যক্তি। এমনি অভিযোগ উঠেছে ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটে, কালনার মন্তেশ্বরের চন্দনপোতা গ্রামে। মৃত গৃহবধূর নাম বন্যা মন্ডল। অভিযোগ ওঠে যে, আত্মঘাতী ওই ব্যক্তির সাথে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। প্রেমিকের নাম দীপক হালদার। এরপর, পুলিশ দুই মৃতদেহকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে মন্তেশ্বর থানায়।

আট মাস আগে পূর্বস্থলীর গৌরাঙ্গ মন্ডলের সাথে বিয়ে হয় মন্তেশ্বরের চন্দনপোতা গ্রামের বন্যা মন্ডলের। তাঁদের দুজনের একটি কন্যা সন্তান আছেl মাস চারেক আগে তাঁদের বাড়িতে নির্মাণ কাজ করতে আসেন মুর্শিদাবাদের কান্দি থেকে দীপক হালদারl সেই সূত্রে বাড়ির বধূ বন্যার সাথে দীপক প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। প্রেমিকের সাথে পালিয়ে গিয়ে চার মাস ঘরও করেন বন্যা। এই সম্পর্ক জানাজানি হওয়ার প্রিয় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দূরত্ব বেড়ে যায়। পরে বন্যার বাবা মেয়েকে বুঝিয়ে ঘরে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। তারপর থেকে স্বামীকে ছেড়ে বাপের বাড়িতেই থাকতে শুরু করেন বন্যা মন্ডল।

পরবর্তী সময়ে পুনরায় স্বামী স্ত্রীর সঙ্গে সস্পর্ক জোড়া লাগে। এই খবর সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পারেন প্রেমিক দীপক। এরপরই বন্যার বাড়িতে ঢুকে নৃশংস ভাবে কুপিয়ে তাকে খুন করেন প্রেমিক দীপক। তাঁকে বাধা দিতে আসে বন্যার পরিবার। এরপরই অস্ত্র ফেলে ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেন দীপক। ঘটনাস্থল থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে ঘূর্ণি গ্রামে একটি আমগাছে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হন দীপক। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মন্তেশ্বর থানার পুলিশ।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close