West Bengal

বন্ধের পথে বিজেপি , অর্জুন আক্রান্ত তাই পাল্টা পথে হাটবে :রক্তাত ব্যারাকপুরে সোমবার ধর্মঘট !

অর্জুনের থেকে দিলীপ ঘোষ আক্রান্ত জেলার নেতারা অনেকেই তাই সোমবার ব্যারাকপুর কর্মনাশা বন্ধের পথে।

জেলা সভানেত্রী ফাল্গুনী পাত্র সাংবাদিকদের জানান সোমবার ব্যারাকপুর বন্ধ থাকবে সব কিছু , শুধু জরুরি পরিষেবা ছাড় দেওয়া হবে বলে জানান।কারণ বিজেপির ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং-এর উপর হামলার ঘটনা শুধু নয়। ” চায়ে পে চর্চায় ” কর্মসূচিতে লেক টিউনে দিলীপ ঘোষ এর ওপর চড়াও হয় কিছু তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থক সঙ্গে জেলার সার্বিক সন্ত্রাস কে সামনে রেখেই এই বন্ধের পথে বিজেপি। ।

এদিকে বনগাঁ উত্তরের তৃণমূল থেকে বিজেপি-তে যোগ দেওয়া বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাসের উপর হামলা এবং রবিবার অর্জুন সিং-এর উপর হামলা–এই তিন ইস্যুতে আগেই সোমবার রাজ্যের সব জেলায় পুলিশ সুপারের অফিস ঘেরাওয়ের ডাক দিয়েছিল গেরুয়া শিবির।

উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী বাংলা থেকে বনধের সংস্কৃতি তুলে দিয়েছেন। কালও বনধ হবে না। প্রশাসন রাস্তায় থেকে জনজীবন স্বাভাবিক রাখবে।” পাল্টা হুমকির পথে তৃণমূল।

অন্য ক্ষেত্রে উত্তর ২৪ পরগনার শ্যামনগরে পার্টি অফিস দখল ঘিরে অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে এলাকা৷ সেই নিয়ে বিজেপির অবরোধ তুলতে গেলে ধুন্ধুমার বাঁধে পুলিশের সঙ্গে৷ এই সময়েই মাথা ফাটে বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের৷ ইটের আঘাতে আহত বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মীও৷ বিজেপির দাবী পুলিশের লাঠির আঘাতেই মাথা ফেটেছে তাঁর৷বোমাবাজি হয় রবিবার অর্জুন সিংয়ের বাড়ির সামনেও ৷ অর্জুন সিংয়ের বাড়ি ঘিরে রেখেছে বিশাল পুলিশ বাহিনী৷বিজেপির অভিযোগ অর্জুন সিংয়ের বাড়িতে তল্লাশি চালানোর চেষ্টা চালানো হয় বলে।

অগ্নিগর্ভ অবস্থায় আগামীকাল জনজীবন বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে যদি না প্রশাসন উপযুক্ত ব্যবস্থা না নেয়। আতঙ্কিত সাধারণ মানুষের অভিযোগ অনেক আগেই অর্জুন থেকে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলে এই ভোগান্তি সাধারণ মানুষের হত না। বাম আমলেও এই ধরণের সন্ত্রাস ময় অবস্থা ছিল না , যে খানে সব সময় আতঙ্কের মধ্যে মানুষ ছিল। কিছু সময় হলেও সেটা মিটে জেট কিন্তু এই অবস্থান আর মানুষ মেনে নিতে পারছে না বলে জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close