Analysis

ভাড়ার শূন্য , ঘোষণার যুদ্ধে মোদির পথে মমতা :রাজ্যের এই আর্থিক অবস্থায় এটা কি সম্ভব ?

নেতাজী ইন্ডোরে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী : "বলুন দেখি বেতন বাড়ালে কত যেন দাঁড়াচ্ছে , হিসেবে করে দেখবেন তো ! সাত হাজার বেসিক কি ১৭০০০ টাকায় পৌঁছল? "

আমপাব্লিকের সমালোচনার মুখে পরে গেলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যে রাজ্যে শিক্ষিত বেকারের চাকরি নেই। কৃষকরা এখনোও দেনার দায়ে আত্মহত্যা করে। রাজ্যে বাস্তবে ২০০০ কোটি টাকার শিল্প হয় নি। যেখানে সাধারণ ঘরের ছেলে মেয়েরা রাজ্য ছাড়ছে অন্য রাজ্যে পাড়ি দিচ্ছে । ঘোষণা অনেক, কিন্তু বাস্তব রূপায়ণ নেই।এই ঘোষণায় রাজ্যের সাধারণ মানুষের সমালোচনায় মুখে পরে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাস্তার আলোচনায় উঠে আসছে এটা যদি Pk এর পরামর্শও হয় তাহলে মমতা ২০২১ শে ফাইনাল পরীক্ষায় ডাহা ফেল করবেন , কারণ যেখানে পুজোর মুখে সাধারণ মানুষের বাজারে ক্রয় ক্ষমতা কমে গেছে সেখানে এই ঘোষণা ক্ষুদার্ত মুখে বিদ্রুপের মত শোনায়।আর এই সব কারণেই মমতার ভরসার ভীত সরছে জনমানসে।

এক নজরে দেখে নিন কঠিন অঙ্ক : ন্যূনতম বেসিক ৬৬০০ + মহার্ঘ ১২৫%+ এইচ আর এ ১৫% মোট ১৫৮৪০ টাকা। ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশ চালুর পর বেড়ে হবে- ন্যূনতম বেসিক ১৭০০০ + মহার্ঘ ০ + এইচ আরএ ১৫% মোট ১৯৫৫০ টাকা। অর্থাত্‍ বাড়ছে ৩৭১০ টাকা।যাদের ন্যূনতম বেসিক ৭০০০ টাকা, তাদের ক্ষেত্রে ন্যূনতম বেসিক ৭০০০+মহার্ঘ ১২৫ %+ এইচআরএ ১৫ % মোট ১৬৮০০ টাকা।তা বেড়ে হবে- ন্যূনতম বেসিক ১৭৯৯০ + মহার্ঘ ১২৫% + এইচ আর এ ১৫% মোট ২০৬৮৯ টাকা। অর্থাত্‍ বাড়ছে ৩ হাজার ৮৮৯টাকা

২৩ তারিখ মন্ত্রিসভায় পেশ করা হবে পে কমিশনের রিপোর্ট।আর রিপোর্ট কার্যকরী হলে আনুমানিক ২.৫৭ শতাঁশ হারে বেতনবৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে সরকারী কর্মীদের।৭ হাজার টাকা থেকে বেড়ে ন্যূনতম বেসিক পে হতে চলেছে ১৭০০০ টাকা।ষষ্ঠ বেতন কমিশনের প্রাথমিক সুপারিশে সায়।ফলে সরকারি কর্মীদের ন্যূনতম বেসিক বেড়ে হল সতেরো হাজার টাকা। এর পাশাপাশি বাড়ছে গ্র্যাচুইটি। ৬ লাখ টাকা থেকে গ্র্যাচুইটি বেড়ে হচ্ছে ১০ লাখ । এর জন্য সরকারের খরচ বাড়ছে ১০ হাজার কোটি টাকা।

পুজোর মুখে সরকারি কর্মচারীরা বেজায় খুশি আর তা পয়লা জানুয়ারি থেকে নতুন হার কার্যকর হবে। নেতাজি ইন্ডোরে সরকারি কর্মীদের সভায় ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্য সরকার ২০১৫ সালের ২৭ নভেম্বর ষষ্ঠ বেতন কমিশন গঠন করেছিল। আর তৃণমূল পন্থী অভিরূপ সরকার কমিশনের চেয়ারম্যান। নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে মুখ্যমন্ত্রী জানান প্রথম পর্যায়ের রিপোর্ট জমা দিয়েছে কমিশন। পে কমিশনের সুপারিশ মেনে নিলে পরিবর্তিত বেতন মুখে হাসি ফোটাচ্ছে সরকারি কর্মীদের।তবে বলে যায় খেঁটে খাওয়া মানুষের হাসি অধরাই রইবে। ( ভিডিও সৌজন্যে : মাননীয় মুখ্য মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় )

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close