Health

ভ্রূক্ষেপ নেই কর্তৃপক্ষের, ভাতের মধ্যে চরে বেড়াচ্ছে আরশোলা।

নামকরা খাদ্য সংস্থার উপরে উঠছে অভিযোগ, অবহেলার সাথে চলছে পরিষেবা।

@ দেবশ্রী : খাবার এমন একটি জিনিস যেটার বিশুদ্ধতা আমাদের কাছে সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সেই খাবারে যদি কিছু নোংরা পাওয়া যায় তার থেকে বিরক্তিকর বোধ হয় আর কিছুই হয় না। এমনি একটি ঘটনা ঘটে দিল্লিতে। ফয়েলে মোড়া সাদা ভাতের মধ্যে স্বচ্ছন্দ্যে বিচরণ আস্ত আরশোলার। কেটটি পালটে নতুন করে আনা হল খাবার। কিন্তু তাতেও সেই এক ছবি। ভাতের থেকে কিছুতেই যাচ্ছে না আরশোলা। এমন চূড়ান্ত অব্যবস্থার নিদর্শন খোদ দিল্লির বিখ্যাত বঙ্গভবনে। এমনি গুরুতর অভিযোগ উঠল, বঙ্গভবনের সাথে চুক্তি বদ্ধ খাদ্য সরবরাহকারী সংস্থা বিজলি গ্রিলের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরি র বাড়ি থেকে তাঁর মেয়ের জন্য বঙ্গভবনের বিজলি গ্রিল থেকে খাবার আনতে দেওয়া হয়েছিল। তাঁর ব্যক্তিগত সচিব গিয়েছিলেন সেই খাবারটি আনতে। কিন্তু বাড়ি ফিরে দেখা যায়, ফয়েলে মোড়া ভাতের মধ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে আরশোলা। সঙ্গে সঙ্গে অভিযোগ জানিয়ে বঙ্গভবনের বিজলি গ্রিলের অফিসে ফোন করা হয়।তখন ম্যানেজার জানান যে তিনি অন্য কাউকে দিয়ে নতুন করে খাবার পাঠাচ্ছেন। এর কিছুক্ষণ পর এক ব্যক্তি খাবার নিয়ে পৌঁছন তাঁর বাড়িতে। কিন্তু নতুন খাবারের প্যাকেট খুলেও দেখা যায়, সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। অর্থাত্‍ ভাতের মধ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে আরশোলা। দ্বিতীয়বার এমন দৃশ্য দেখে হতাশ সাংসদের পরিবারের সদস্যরা। খাবারের সাথে এইরূপ অবহেলাতে ক্ষুব্ধও হয়েছেন তাঁরা।

বিজলি গ্রিল যথেষ্ট একটি নামী খাদ্য সরবরাহকারী সংস্থা। কলকাতা-সহ বিভিন্ন মেট্রো শহরে বিজলি গ্রিলের খাবারের মান এখনও পর্যন্ত যথেষ্ট ভাল বলেই গ্রাহকরা জানিয়েছেন। সম্প্রতি মান বজায় রাখার দোহাই দিয়ে দামও বাড়ানো হয়েছে বলে অভিযোগ গ্রাহকদের। দিল্লির বঙ্গভবন রীতিমতো ভিআইপি ভবন। সেখানকার সমস্ত খাবার সরবরাহের জন্য চুক্তিবদ্ধ বিজলি গ্রিল। কিন্তু সেখানে এমন দায়সারাভাবেই চলছে পরিষেবা। এমনকী কর্তৃপক্ষের নজরে তা আনার পরও একই ভুলের পুনরাবৃত্তি। এবং সাংসদের মেয়ের ক্ষেত্রে কোনও বাড়তি নজর নেই কর্তৃপক্ষের, এমনই অভিযোগ অধীর চৌধুরির ক্ষুব্ধ কন্যার।

এর বিরুদ্ধে তাঁরা কোনওরকম ব্যবস্থা নেবে কি না, তা ভেবে দেখবেন বলে ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদ। তবে খাবারের সাথে এমন দায়সারাভাবে কখনওই গ্রহণযোগ্য নয়।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close