Science & Tech

যাত্রীদের চাহিদা মেটাতে ও রেল ব্যবস্থা উন্নত করতে, বেসরকারি ট্রেন চালু করার সির্ধান্ত রেল কর্তৃপক্ষের।

চালু হতে চলেছে নতুন বেসরকারি রেল, আর তাতে বাংলা পাচ্ছে মোট ১১টি ট্রেন।

@ দেবশ্রী : বেসরকারি রেল চালু হওয়ার পর থেকে তা বেশ ভালোই সফলতা পেয়েছে। তেজস এক্সপ্রেস চালানোর পর থেকে, সাফল্য হাতে পেয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। তাই এবার আরও বেসরকারি উদ্যোগের রেল পরিষেবা শুরু হচ্ছে দেশে। মোট ১০০টি নতুন বেসরকারি ট্রেন চালাবে ভারতীয় রেল। ইতিমধ্যে সেই তালিকাও হয়ে গেছে প্রকাশ। তালিকা অনুযায়ী দেখা যাচ্ছে, বাংলা পাচ্ছে ১১টি ট্রেন।

কেন্দ্রীয় সরকারের ১০০ দিনের অ্যাজেন্ডা মেনে রেলওয়ে বোর্ডের চেয়্যারম্যান ভিকে যাদব প্রাইভেট ট্রেন ফ্ল্যাগ অফ করার পরেই, একটি প্যানেল তৈরি করেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল। রেল পরিচালনার সাথে যুক্ত সবক’টি ক্ষেত্রের প্রতিনিধির সঙ্গে আলোচনা করে সির্ধান্ত নেওয়া হয়, ভারত তো বটেই বিদেশেরও কোনও সংস্থার যদি রেল ও পর্যটনের ব্যাপারে অভিজ্ঞতা থেকে থাকে তাহলে তাদের ট্রেন চালানোর অনুমোদনও দেওয়া যেতে পারে।

তবে এক্ষেত্রে দেওয়া হয়েছে কিছু শর্ত। আর সেই শর্ত অনুযায়ী, ওই সংস্থার মূল্য (নেট ওয়ার্থ) ৪৫০ কোটি টাকা হতে হবে। এছাড়াও বেশ কয়েকটি শর্ত তাদের দেওয়া হবে যার মধ্যে থাকছে সর্বাধিক ১৫ মিনিট লেট করা যেতে পারে, তার বেশি দেরি হলে যাত্রীদেরকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। এই শর্তেই ট্রেন চালাচ্ছে আইআরসিটিসি।

মানুষের প্রত্যহ যাতায়াত করা বা কোথাও দূরে যাত্রা করার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আমাদের কাছে ট্রেন। যত দিন বাড়ছে, আরোই ট্রেনের চাহিদা। তবে এখন যাত্রীদের চাহিদা এখন আর মেটাতে পারছে না রেল। বিভিন্ন ট্রেন মিলিয়ে গড়ে ১৫ শতাংশ যাত্রীকে ওয়েটিং লিস্টে থেকে যেতে হয়। রেল চাইছে এই ওয়েটিং লিস্ট প্রথা শেষ করতে। একই সঙ্গে পরিষেবা আরও ভাল করাও লক্ষ্য রেল কর্তৃপক্ষের। রেলের রিজার্ভ কামরায় যাত্রীর সংখ্যা ২০১৩-১৮ সালের মধ্যে পাঁচ শতাংশ বেড়েছে যদিও একই সময়ে বিমানযাত্রীর সংখ্যা বেড়েছে তেরো শতাংশ। এইসব বিষয় মাথায় রেখেই বেসরকারি সংস্থাকে ট্রেন চালানোর ভার দিতে চাইছে ভারতীয় রেল। এই বেসরকারি ট্রেন চালানোর ক্ষেত্রে বাংলার রুট রয়েছে মোট ১১টি। তাহলে দেখে নেওয়া যাক কোন কোন রুটে আগামী দিনে বেসরকারি ট্রেন চলবে।

এই বেসরকারি ট্রেনের প্রথম রুট, টাটানগর থেকে শালিমার দৈনিক। দ্বিতীয়, শালিমাল থেকে পুণে সাপ্তাহিক। তৃতীয়, হাওড়া থেকে চেন্নাই দৈনিক। চতুর্থ, শালিমার থেকে টিসিটিবি দৈনিক। পঞ্চম, হাতিয়া থেকে টিসিটিবি সাপ্তাহিক। ষষ্ঠ, পুরী থেকে শালিমার সপ্তাহে তিন দিন। সপ্তম, নিউ জলপাইগুড়ি থেকে হাওড়া সাপ্তাহিক। অষ্ঠম, হাওড়া থেকে আনন্দ বিহার দৈনিক। নবম, হাওড়া থেকে পাটনা দৈনিক। দশম, হাওড়া থেকে মালদা টাউন দৈনিক। এবং একাদশ নং রুট, শিয়ালদহ থেকে গৌহাটি সপ্তাহে দু’দিন। এখন দেখার বিষয় এই বেসরকারি ট্রেনগুলি কেমন সাফল্য পায়।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close