Culture

শত বিক্ষোভের মধ্যেও, গির্জার দ্বার খুলে দেওয়া হল মুসলিমদের প্রাথর্না করার জন্যে।

যতই ঘটুক বিক্ষোভ, কিন্তু আজও মনুষ্যত্ব ভোলেননি মানুষ। সবার উর্ধে মানুষ, আবারও হল প্রমান।

@ দেবশ্রী : নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে উত্তাল সারা দেশ। তবে এই মুহূর্তে দুই রকম চিত্র দেখা যাচ্ছে। যেখানে একদল এই আইনের বিরুদ্ধে নিজেদের প্রতিবাদ জানাচ্ছে। আর একদল নতুন বছরকে আগমন জানিয়ে উৎসব পালন করছে। কিন্তু সেই সব কিছুর মধ্যে ঘটে গেল এক বিরল ঘটনা। সেই দৃশ্য হল, সর্বধর্মসমন্বয়। কেরলের পিনারাই বিজয়নের সরকার আগেই এই সংশোধিত আইনের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাশ করিয়েছে বিধানসভায়। আর এবারে দেখা গেল, সেই রাজ্যের গির্জার দ্বার খুলে দেওয়া হল মুসলিম ধর্মাবলম্বী মানুষজনের প্রার্থনার জন্য।

এমন বিরল দৃশ্য কোথাও সহজে দেখতে পাওয়া যায় না এমনকি সহজে পরিকল্পনাও করা যায় না, তবে আজ এটাই বাস্তবে পরিণত হয়েছে। ১০০ জন মুসলিম ধর্মাবলম্বী মানুষ সেখানে প্রার্থনা করলেন বিনা বাঁধায়। বরং গির্জার দ্বার খুলে দেওয়া হল তাঁদের প্রার্থনা করার জন্য। আর প্রমাণিত হল, এটাই ভারতবর্ষ। এটাই তার সংস্কৃতি। বিবিধের মাঝে মিলন। ঘটনাটি ঘটেছে এর্নাকুলাম জেলার কোথামঙ্গলম এলাকায়। যেখানে আবারও প্রমাণিত হয় সবার উপরে মানুষ।

সূত্রের মাধ্যমে জানা যায়, নাগরিকত্ব সংশোধিত আইনের বিরুদ্ধে মিছিল সমাবেশ করছিল রাজনৈতিক দলগুলি। আর সেই মিছিল পৌঁছে যায় কোথামঙ্গলম এলাকায়। তখন সন্ধ্যের প্রার্থনা করার সময় মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের। কিন্তু রাস্তায় মিছিল থাকায় তা করা সম্ভব হচ্ছিল না। এই পরিস্থিতিতে সেন্ট থমাস চার্চ কর্তৃপক্ষ এগিয়ে আসে। আর বিনা বাধায় প্রায় ১০০ জন মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষকে প্রার্থনা করার জন্য গির্জার দরজা উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। আর দেখা যায় এমন এক বিরল দৃশ্য।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close