Health

শৈশব অপুষ্ট, দুবছরের নীচে ৭% শিশু অপুষ্টির শিকার

জনসংখ্যা বৃদ্ধি সাথে সাথেই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে অপুষ্টি, রক্তাল্পতা ।

প্রেরণা দত্ত :  কমপ্রিহেনসিভ ন্যাশনাল নিউট্রিশনাল সার্ভের (CNNS) সমীক্ষা চমকে দিল দেশকে।অন্ধ্রপ্রদেশে দুই শিশু দলা দলা মাটি খেয়ে মরেছিল, অন্যদিকে বারাণসীতে খিদের জ্বালায় নিজের তিন শিশুকন্যাকে বাবা বিষ খাইয়ে মারে।দিনকয়েক আগেই মধ্যপ্রদেশে ফের অনাহারে মৃত্যু হয় আট বছরের শিশুর। রিপোর্ট বলছে, অন্ধ্রপ্রদেশ, কেরলের মতো রাজ্যে অপুষ্টির ছায়া সবচেয়ে বেশি। 

সিএনএনএস-এর রিপোর্ট বলছে,অন্ধ্রপ্রদেশ (৩৫.৯%), কেরল (৩২.৬%),   তামিলনাড়ু  ( ৪.২%), মহারাষ্ট্র (২.২%,)  গুজরাট, কর্ণাটকেও  (৩.৬%) অপুষ্টির হার বেশি। আবার জাতীয় পরিবার স্বাস্থ্য সমীক্ষাও বলছে, দেশে পাঁচ বছরের নীচে থাকা প্রায় ৫৮ শতাংশ, অর্থাৎ প্রায় সাড়ে সাত কোটি শিশু রক্তাল্পতায় ভোগে।প্রায় সাড়ে চার কোটি শিশুর বয়সের তুলনায় ওজন কম।

ইউনিসেফের রিপোর্ট বলছে, ২০১৯ সালের প্রথম দিনে ভারতে ৬৯ হাজার ৯৪৪ জন নবজাতকের জন্ম হয়েছে।জনসংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে দারিদ্র্য, অনাহার। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)-এর রিপোর্ট বলছে, বিশ্ব জুড়ে ১৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সী প্রায় ৬১ কোটি মহিলা রক্তাল্পতায় ভোগেন। আর আমাদের দেশের নিরিখে তা প্রায় ৫১ শতাংশ।পরিবারের আর্থিক সামর্থ্য না থাকায় ওই শিশুরা  এক দিকে যেমন পর্যাপ্ত পুষ্টিকর খাবার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে, তেমনই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বড় হওয়ায় প্রায়ই এরা রোগের শিকার হয়। তা ছাড়া, সচেতনতার অভাব একটা বড় কারণ।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close